বাংলাদেশে করোনা’র ভ্যাকসিন উৎপাদনের জন্য চীনের প্রেসিডেন্টকে আহ্বান জানান জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলু 

পল্লীকণ্ঠ অনলাইন ডেস্কঃ সিপিসি এবং বিশ্ব রাজনৈতিক দলগুলোর সম্মেলনে জাতীয় পার্টির পক্ষ থেকে পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু চীনের প্রেসিডেন্টের উদ্দেশ্যে বলেছেন, বর্তমানে বৈষ্মিক যে করোনা মহামারী মোকাবেলায় জাতীয় পার্টি আশা করে চীন বাংলাদেশে ভ্যাকসিন তৈরী করবে। যাতে করে বাংলাদেশের ৮০ ভাগ মানুষকে অনতিবিলম্বে টিকার আওতায় আনা যায়। তিনি অক্সিজেন তৈরির ব্যাপারে বাংলাদেশকে সাহায্য করার জন্য আন্তরিক আহ্বান জানান। যাতে করে অক্সিজেনের অভাবে আর কোনো করোনা রুগীর মৃত্যুবরণ করতে না হয়। একই সাথে জাতীয় পার্টি ভেন্টিলেটর সহস্বাস্থ্য সামগ্রী উৎপাদনে চীনা সহায়তার আহ্বান জানান।

 

 

আজ মঙ্গলবার রাতে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন।

শি জিনপিং তার বক্তব্যে ধনী-দরিদ্র বৈষম্য কমানো, উন্নত ও অনুন্নত দেশের মধ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সমতা আনা, করোনা টিকা যাতে উন্নয়নশীল বিশ্ব পায় সে ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করেন। তিনি বলেন, দারিদ্র দূরীকরণ ছাড়া সারাবিশ্বের মানুষকে আমরা সমান অধিকার দিতে পারবোনা। তিনি ১৬০টি দেশের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলকে দারিদ্র দূরীকরণ, টিকা এবং ধনী-দরিদ্র বৈষম্য কমানো এবং করোনা ভাইরাস মোকাবেলার জন্য ঐক্যবদ্ধ প্রয়াসের শামিল হওয়ার আহ্বান জানান।

এসময় জাপা মহাসচিব আরো বলেন, জাতীয় পার্টি বিশ্বাস করে চীন বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু এবং চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক এবং প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর নেতৃত্বে দুই দেশের, জাতীয় পাটি ও চীনা কমিউনিস্ট পার্টি এবং দুই দেশের জনগণের বন্ধুত্ব আরো গভীর হবে। চীনা কমিউনিস্ট পার্টির শতবর্ষ উপলক্ষ্যে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক এবং প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং, কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃবৃন্দ ও চীনা জনগণকে তিনি উষ্ণ অভিনন্দন জানান।

বাবলু বলেন, জাতীয় পার্টির প্রয়াত চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সময় চীনের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক আরো গভীরতর হয় এবং চীন প্রথমবারের মতো চীন-বাংলাদেশ মৈত্রি সেতু নির্মাণ করেন এবং চীন বাংলাদেশে বিদ্যুৎখাতে প্রথমবারের মতো রাজউজানে ৪২০ মেগাওয়ার্টের তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে অর্থায়ন করে। এসব বিনিয়োগ ছিল চীন-বাংলাদেশ মৈত্রি ও ভ্রাতৃত্ব বন্ধনের প্রকৃষ্ঠ উদাহারণ। জাতীয় পার্টি বিশ্বাস করে কারো প্রতি শত্রুতা নয়, সকলের সাথে বন্ধুত্বের নীতির মাধ্যমে চীন বাংলাদেশ সম্পর্ক প্রতিনিয়ত দৃঢ় থেকে দৃঢ়তর হবে।

সম্মেলনে ভিডিও কনফারেন্সে জাপার আরো নেতা পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও অতিরিক্ত মহাসচিব ব্যারিস্টার শামীম হায়দার পাটোয়ারী এমপি এবং পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা আল মাহমুদ অংশ নেন।