জাতির জনক রাষ্ট্রীয় সম্পদ, কারোই একা নয়… মাহমুদ

পল্লীকণ্ঠ প্রতিনিধিঃ জাএতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মৃত্যু দিবস ১৫ ই আগস্ট, জাতীয় শোক দিবস হিসাবে জাতি প্রতি বছর পালন করে আসছে, বঙ্গবন্ধু কোনো একক দল বা গুষ্টির নয়, বঙ্গবন্ধু জাতির জনক হিসেবে জাতীয় সম্পদ, বাঙ্গালী জাতি বা বাঙ্গালী হিসেবে বঙ্গবন্ধুর প্রতি প্রত্যেক নাগরিকের শ্রদ্ধা ভালবাসা ও সম্মান রয়েছে। রাষ্ট্রের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্দেশনা আসছে জেলা উপজেলায় যথাযত মর্যাদায় ১৫ই আগষ্ট পালন করা জন্য

দুঃখজনক হলেও সত্য যে, জেলা প্রশাসক বা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ১৫ই আগষ্ট পালনের যে প্রস্তুতি সভা করেছেন সেখানে আওয়ামী লীগ ব্যতিত অন্য রাজনৈতিক দলগুলোকে ডাকা হয়নি। বঙ্গবন্ধুকে দলমতের ঊর্ধ্বে রাখার দায়িত্ব ছিল আওয়ামী লীগের কিন্তু সেখানে তাহারা ব্যর্থ হয়েছে, সাথে প্রশাসনেও একদলীয় মনোভাব নিয়ে দিবসটি পালন করতে যাচ্ছে।

প্রশাসন ও আওয়ামী লীগ ইচ্ছে করে জাতির জনককে তাদের এক দলীয় সম্পদ বানিয়ে রাখছে, তাতে আওয়ামী লীগ ও প্রশাসন জাতিকে তার অধিকার থেকে বঞ্চিত করছে। রাষ্ট্রীয় কোন প্রোগ্রামের প্রস্তুতি সভা বা আয়োজনে স্থানীয় পর্যায়ে (জেলা উপজেলায়) সরকার দলের সাথে বিরোধী দলের নেতৃবৃন্দ বা অন্যান্য দলের নেতৃবৃন্দকে দাওয়াত করলে প্রশাসনের অসুবিধাটা কোন যায়গায়? মনে রাখবেন কোন আমলা নয়, স্বাধীন বাংলার স্লোগান রাজনীতিবিদরাই দিয়ে ছিল এবং দেশ স্বাধীনের জন্য মুক্তির সংগ্রামে ঝাপিয়ে পড়েছিল, যার উদ্দেশ্যে ১৫ই আগষ্ট পালন করতে যাচ্ছি বা যাচ্ছেন তিনি কোন আমলা নয়, তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একজন দেশপ্রেমিক রাজনীতিবিদ।

মাহমুদুর রহমান মাহমুদ

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, (সাবেক)

মৌলভীবাজার জাতীয় পার্টি